শিরোনাম
বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪
বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪

চিকিৎসক সংকটে ব্যাহত চিকিৎসা সেবা,নেই অ্যাম্বুলেন্স চালক

আলোকিত সকাল প্রতিবেদক
প্রকাশিত:বুধবার ১০ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১০ জুলাই ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
Image

মোঃ তোতা মিয়া,  হরিণাকুণ্ডু প্রতিনিধি : 


বেলা  ঠিক  দুপুর ১২টা। হরিণাকুণ্ডু উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে দেখা গেল, অ্যাম্বুলেন্স রাখার গ্যারেজ তালাবদ্ধ, ভেতরে সরকারি অ্যাম্বুলেন্স। সামনে রাখা বেসরকারি অ্যাম্বুলেন্স ও মাইক্রোবাস। বহির্বিভাগে যেতে দেখা মেলে রোগীর উপচে পড়া ভিড় । অনেকে ঘণ্টার পর ঘণ্টা লাইনে দাঁড়িয়ে আছেন। মাত্র তিনজন চিকিৎসক দিচ্ছেন শত শত রোগীর চিকিৎসা। ওয়ার্ডগুলোতে শয্যা সংকটে মেঝেতে রয়েছেন রোগী।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসকের ২৮টি পদ রয়েছে। এর মধ্যে ১০ জন জুনিয়র কনসালট্যান্ট ও ১৮ জন মেডিকেল অফিসার। অথচ কর্মরত আছেন মাত্র ১১ জন। জুনিয়র কনসালট্যান্টের ১০ পদের মধ্যে তিনজনের নিয়োগ থাকলেও দু’জন ডেপুটেশনে অন্যত্র কর্মরত। একজন কনসালট্যান্ট দিয়ে নানা ধরনের অস্ত্রোপচার সেবা দেওয়া হয়।

১৮ জন মেডিকেল অফিসারের পদের বিপরীতে কর্মরত রয়েছেন ১০ জন। এর মধ্যে চার-পাঁচ চিকিৎসক প্রশিক্ষণসহ নানা কাজে প্রায়ই বাইরে থাকেন। এতে বিঘ্নিত হচ্ছে চিকিৎসাসেবা। এদিকে রোগী বহনের জন্য অ্যাম্বুলেন্স থাকলেও এক বছর ধরে নেই চালক। ফলে ৫০ শয্যার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটিতে সেবাবঞ্চিত হচ্ছেন রোগীরা।

স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, সরকারি অ্যাম্বুলেন্সটির চালক না থাকার সুযোগে তিন-চার গুণ ভাড়া নিচ্ছেন বেসরকারি অ্যাম্বুলেন্স ও মাইক্রোবাস চালকরা। বাধ্য হয়েই উন্নত চিকিৎসার জন্য এলাকার মানুষের বাড়তি ভাড়া দিয়ে যেতে হয় জেলা সদরসহ দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে। এতে ক্ষোভ বাড়ছে সেবাপ্রত্যাশীদের। যদিও কর্তৃপক্ষের দাবি, বারবার চাহিদা পাঠিয়েও চালক ও চিকিৎসক পাওয়া যায়নি।

২০০৩ সালে ৩১ শয্যার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে একটি অ্যাম্বুলেন্স দেওয়া হয়। পরে ২০০৭ সালে এটি ৫০ শয্যায় উন্নীত করা হয়। শুরু থেকেই একটি অ্যাম্বুলেন্স দিয়ে সেবা দেওয়া হচ্ছিল রোগীদের। এরই মধ্যে গত বছরের জুলাই মাসে চালক শফিউদ্দীন অবসরে যান। তাঁর পরিবর্তে কোনো চালক নিয়োগ না হওয়ায় বন্ধ হয়ে যায় সেবা। ফলে গ্যারেজে পড়ে থেকে নষ্ট হওয়ার উপক্রম অ্যাম্বুলেন্সটি।

বহির্বিভাগে চিকিৎসা দিচ্ছিলেন আবাসিক মেডিকেল অফিসার মাহফুজুর রহমান। তিনি বলেন, প্রতিদিন অন্তত ৭৫০ রোগী চিকিৎসা নিতে আসেন। তিন-চারজন চিকিৎসক দিয়ে এত মানুষের সেবা দিতে তাদের হিমশিম খেতে হয়। সকাল সাড়ে ৮টা থেকে একটানা আড়াইটা-৩টা পর্যন্ত চিকিৎসা দেন। তিনি প্রতিদিন অন্তত সাড়ে ৩৫০ রোগী দেখেন।

রোগীর স্বজনের ভাষ্য, হাসপাতাল থেকে প্রতিদিন বেশ কিছু রোগী জেলা সদরে উন্নত চিকিৎসার জন্য নিয়ে যেতে বলা হয়। সরকারি অ্যাম্বুলেন্স সুবিধা থাকলে মাত্র ২০ টাকা প্রতি কিলোমিটারে ভাড়া দিয়ে বাইরে রোগী নিয়ে যাওয়া যায়। এতে অর্থ সাশ্রয়ও হয়, ভোগান্তিও কম হতো।

স্বজল হোসেন নামে এক রোগীর স্বজন বলেন, হরিণাকুণ্ডু থেকে ঝিনাইদহে রোগী নিয়ে গেলে সরকারি অ্যাম্বুলেন্সে ভাড়া লাগে ৪০০ টাকা। কিন্তু বেসরকারি অ্যাম্বুলেন্স বা মাইক্রোবাস চালকরা ভাড়া নেন দেড় হাজার টাকা। অনেকে কুষ্টিয়া, ফরিদপুর বা রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রোগী নিয়ে যান। আগে সরকারি অ্যাম্বুলেন্সে কুষ্টিয়ায় রোগী নিলে ভাড়া পড়ত ৭০০ টাকা। এখন তারা ২ থেকে ৩ হাজার টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা জামিনুর রশিদ বলেন, ৫০ শয্যার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সব সময় ৭০-৮০ জন রোগী ভর্তি থাকে। চিকিৎসাসেবা দিতে হিমশিম খেতে হয়। অ্যাম্বুলেন্সের চালকের জন্য ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে চাহিদা পাঠানো হয়েছে। দ্রুত সমস্যার সমাধান হবে বলে আশা তাঁর।


আরও খবর




চলমান ছাত্র আন্দোলনে সংহতি জানাল গ্লোবাল স্টুডেন্ট ফোরাম সহ ৫ দেশ

গুলির সঙ্গে কোনো সংলাপ হয় না : সমন্বয়ক আসিফ মাহমুদ

কোটা সংস্কার আন্দোলন : গুলিবিদ্ধ ও আহত হয়ে ঢামেকে ৩৩ জন

চাপা আতঙ্ক, ভিন্ন চেহারায় ঢাকা

'কোটা আন্দোলনকারীদের প্রস্তাবকে স্বাগত জানিয়েছে প্রধানমন্ত্রী'

গাজীপুরে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সাথে পুলিশের ধাওয়া পাল্টা দেওয়া

দেশের যুব সমাজকে মাছ উৎপাদনে নজর দিতে হবে : শেখ হাসিনা

মেট্রোরেল চলাচল স্বাভাবিক

বেরোবি শিক্ষার্থী আবু সাঈদ নিহতের ঘটনায় তদন্ত কমিটি

শিক্ষার্থীদের পরিবর্তে আজ মাঠে নেমেছে বিএনপি-জামায়াত: কাদের

ঢাকাসহ সারাদেশে ২২৯ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন

পরিস্থিতি বুঝে মোবাইল ইন্টারনেট বন্ধ করা হয়েছে : পলক

সংসারের ঘানি টানাই দায়

গণপরিবহন শূন্য ঢাকা

এটি বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ বিষয় : চীনা রাষ্ট্রদূত

বাড়ীর কাছে পেয়ে সাংবাদিক বিশ্বজিৎ এর ওপর হামলা, হামলাকারী মিশু গ্রেপ্তার

গভীর রাতে পরকীয়া প্রেমিকসহ পুলিশের স্ত্রী আটক

ষাণ্মাসিক মূল্যায়ন ৩ জুলাই, পদ্ধতিই জানেন না শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা

কালের কণ্ঠের দেশসেরা সাংবাদিকের উপর হামলা বিএফইউজেসহ বিভিন্ন মহলের প্রতিবাদ ও নিন্দার ঝড়

পোরশায় আদিবাসী শিক্ষককে পেটালেন ইউপি চেয়ারম্যান

পরিবেশ সচেতনতায় চিত্রশিল্পী আশরাফুল ইসলামের ব্যতিক্রমী উদ্যোগ

নোয়াখালীতে বৃদ্ধকে গলাকেটে হত্যা

কালিগঞ্জে এনজিও’র প্রতারণার ফাঁদে ৪ অসহায় পরিবার,প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা

দৈনিক আলোকিত সকাল চট্টগ্রাম ব্যুরো অফিসের ঈদ-পুণর্মিলনী ও প্রতিনিধি সভা

তালতলীতে এক ঠিকাদারের বিরুদ্ধে নিম্নমানের কাজের একাধিক অভিযোগ

বোনকে নিয়ে পালালেন স্বামী, মাকে নিয়ে শ্বশুর

কালিহাতীতে বিয়ের দাবিতে এক সন্তানের জননী প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান

নাম ধরে ডাকায় বন্ধুর ছুরিকাঘাতে বন্ধু খুন,আটক ১

শেরপুর মুসলিম যুব সংঘের উদ্যোগে বন্যার্তের মাঝে ত্রাণ বিতরণ

মুসলিম নগর ঐক্য পরিষদের উদ্যোগে বন্যার্তদের মাঝে খাবার বিতরণ


এই সম্পর্কিত আরও খবর

মোটরসাইকেল নিয়ে দ্বন্দ্বে ঘরে ঢুকে যুবককে গুলি করে হত্যা,গ্রেপ্তার ২

আজমিরীগঞ্জে বিপুল পরিমাণ গাঁজা সহ চার গাঁজা ব্যাবসায়ী আটক

শেরপুরে কোটা বিরোধী আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের সাথে ছাত্রলীগ ও পুলিশের ত্রিমুখী সংঘর্ষ

মুরাদনগরে কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়ক অবরোধ করে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

সান্তাহারে শিক্ষার্থীদের কোটাবিরোধী আন্দোলন,উত্তরবঙ্গের সাথে প্রায় ৩ পর ঘন্টা ট্রেন চলাচল শুরু

প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রতি ৪ দফা দাবি আদায়ের চলমান আন্দোলন বেগবান করার লক্ষে ছাত্র শিক্ষকদের মত বিনিময়

সুজানগরের নাজিরগঞ্জ কোটা সংস্কারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল

বিলুপ্তির পথে বাবুই পাখি

পত্নীতরায় অদৃশ্য শক্তির দাপটে বিধবার জমি জবরদখলের অভিযোগ

মাদারগঞ্জে হত দরিদ্র নারীদের সাবলম্বী করতে বিনামূল্যে দেশি মুরগী ও মুরগীর ঘর বিতরণ